নৌকায় বিদ্যালয়ে আসা-যাওয়া
নৌকায় বিদ্যালয়ে আসা-যাওয়া


নৌকায় বিদ্যালয়ে আসা-যাওয়া
নৌকায় বিদ্যালয়ে আসা-যাওয়া

ছবিটা বেশ কয়েক বছর আগে তোলা। শিক্ষার দিক দিয়ে হাওর এলাকা পিছিয়ে আছে- সেটা আমরা সবাই জানি; কিন্তু কতোটা পিছিয়ে? কেন পিছিয়ে? এ বিষয়ে একটি গবেষণা কাজে যাওয়া হলো সুনামগঞ্জ জেলার দিরাই উপজেলার বেশ কিছু গ্রামে, একেবারে ঘোর বর্ষাকালে। গ্রামগুলো একেকটা যেন একেকটা দ্বীপ। প্রতি গ্রামে বিদ্যালয় নেই। পাঁচ-ছয়টি গ্রাম মিলে একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়। দশ-বারোটি গ্রাম খুঁজলে একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয় পাওয়া যায়, কলেজের কথা না হয় থাকুক। বর্ষাকাল যেহেতু, যাওয়া-আসার উপায় সীমিত। অভিভাবকরা সবাই মিলে চাঁদা তুলে ব্যবস্থা করে দেন একটি নৌকার। নৌকাটি কয়েকটি গ্রাম ঘুরে একবারে অনেক শিক্ষার্থীকে বিদ্যালয়ে নিয়ে আসে, ক্লাস শেষে নিয়ে যায়। প্রবল বৃষ্টির দিনে তাও সম্ভব হয় না। সমস্ত বাধাবিপত্তি স্বীকার করে যেসব শিশুকিশোর এসেছে বিদ্যালয়ে- পড়ালেখার আকাঙ্ক্ষায়, তাদেরকে কি কোনো প্রতিকূলতা দাবায়ে রাখতে পারে?

Previous articleশিক্ষার্থীদেরকে দিয়ে ক্লাস নেওয়ানো: একটি প্রস্তাবনা
পরবর্তী লেখাউচ্চশিক্ষায় গবেষণার গুরুত্ব
গৌতম রায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটে সহকারী অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত রয়েছেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউট থেকে শিক্ষায় স্নাতক (সম্মান) ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করে শিক্ষা-গবেষক হিসেবে ক্যারিয়ার শুরু করেন ব্র্যাকের গবেষণা ও মূল্যায়ন বিভাগে। পরবর্তীতে প্ল্যান ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ-এ যোগ দেন গবেষণা ও মূল্যায়ন সমন্বয়ক হিসেবে। সেখান থেকে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটে শিক্ষকতা পেশায় আসেন। তিনি আন্ডারগ্র্যাজুয়েট ও পোস্ট-গ্র্যাজুয়েট উভয় পর্যায়ে শিক্ষা-গবেষণার সাথে সম্পর্কিত কোর্সসমূহ যেমন—শিক্ষায় গবেষণা পদ্ধতি, শিক্ষায় মূল্যায়ন ও পরিমাপ, শিক্ষায় কর্মসহায়ক গবেষণা, শিক্ষা গবেষণায় পরিসংখ্যান ইত্যাদি কোর্সসমূহ পড়াচ্ছেন। পাঠদানের পাশাপাশি শিক্ষা বিষয়ে বিভিন্ন গবেষণার সাথেও যুক্ত রয়েছেন। গবেষক হিসেবে তিনি প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষা, শিক্ষায় মূল্যায়ন পদ্ধতি, শিক্ষা ও আইসিটি, কমিউনিটির সম্পৃক্ততা, শিক্ষায় প্রবেশগম্যতা, শিক্ষা প্রকল্প মূল্যায়ন ইত্যাদি বিষয়ে ৩০টিরও বেশি গবেষণা প্রজেক্টের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। শিক্ষা-বিষয়ে তাঁর একাধিক গবেষণাভিত্তিক প্রবন্ধ বিভিন্ন জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে এবং একাধিক বই প্রকাশিত হয়েছে। শিক্ষা-বিষয়ে নিয়মিত লিখছেন বিভিন্ন জাতীয় দৈনিক ও অনলাইন মিডিয়ায়। তিনি ‘বাংলাদেশের শিক্ষা’ ওয়েবসাইটের সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here