বাংলাদেশের শিক্ষা - ছোট
বাংলাদেশের শিক্ষা - ছোট


মুহম্মদ মাছুম বিল্লাহ: আমাদের মাধ্যমিক বিদ্যালয়গুলোতে ইংরেজি বলার চর্চা কতটা হচ্ছে? এ প্রশ্নের উত্তর অনেকটাই বড় ’না’ বোধক হবে। শিক্ষক যখন ইংরেজি পড়ান, তিনি কি তখন ইংরেজি বলেন? তিনি ইংরেজি বলেন না, কারণ কেউ কেউ মনে করেন ইংরেজি বললে শিক্ষার্থী তার কথা বুঝবে না। আসলে শিক্ষার্থীদের ইংরেজি বলা উচিত কারণ কৈশোরে বয়সের শিক্ষার্থীরা যতটুকু শুনবে ততটুকু মনে রাখতে পারে। তারা অনুকরণপ্রিয়। শিক্ষক যা করবেন, তারাও তাই করবে। শিক্ষক যা বলবেন তারাও তাই বলবে। আমার মনে আছে আমি প্রায়ই ক্লাসে বলতাম, You boy, so what, thanks a lot ইত্যাদি। ছাত্রছাত্রীরা মজা করে বা ব্যঙ্গ করে, অনুকরণ করে হোক কিংবা বয়সর কারণেই হোক, তারা ঐ শব্দগুলো বলতো। অর্থাৎ শব্দগুলোর ব্যবহার তারা শিখেছে। এভাবে শিক্ষক যখন তাদের জিজ্ঞেস করবে What about your homework? তারা বাক্যটি শিখে ফেলবে এবং বাস্তবজীবনে ব্যবহার করতে শিখবে। তারা জেনেছে কোন্ অবস্থায় এই বাক্যটি ব্যবহার করতে হয়। মাতৃভাষা ব্যতীত অন্য কোন দ্বিতীয় ভাষা শিখার এটি একটি উৎকৃষ্ট উপায়।

শিক্ষক ক্লাসে গিয়ে বলবেন Good morning, My dear students, how are you? এই শব্দগুলো একদিকে যেমন ছাত্র-শিক্ষক সম্পর্ক ঘনিষ্ঠতর এবং শিখনবান্ধব করে; অন্যদিকে শিক্ষার্থীদের আত্মবিশ্বাসী, সাহসী করে তোলে এবং সর্বোপরি ইংরেজি ভাষা মূলত যে জন্য আমরা শিখি সেই উদ্দেশ্যগুলোও সফল করতে সহায়তা করে। আর ক্লাসে যখন এই ধরনের পরিবেশ বিরাজ করে যে, ছাত্র-শিক্ষক এক বন্ধুত্বপূর্ণ পরিবেশ শিখন-শেখানোর কাজ করছেন, তখন শিক্ষার্থীদের সব সময়ই আকর্ষণ থাকবে ক্লাসের দিকে। তারা ঐ বন্ধুত্বপূর্ণ পরিবেশ থেকে নিজেকে দূরে রাখতে চাইবে না অর্থাৎ ক্লাসে থাকার কিংবা আসার জন্য উদগ্রীব থাকবে। শিক্ষক বলবেন, Please open at page 19. Now let us start chain drill. Let us start a new lesson, shall we? tag question কোন অবস্থায় ব্যবহার করতে হয়, কোন বাক্যে কী ধরনের tag ব্যবহার করতে হয় তা শিক্ষার্থীরা ক্লাসে স্পোকেন ইংরেজির মাধ্যমেই শিখে ফেলবে, আলাদা বই থেকে কিংবা অবাস্তব অবস্থা থেকে মুখস্থ করতে হবে না। বাস্তব অবস্থায় যখন তারা শিখবে তার গুরুত্ব এবং তা ধরে রাখার ক্ষমতা থাকে দীর্ঘদিন।

ছাত্র-ছাত্রী বা শিক্ষক কেউ বলবে না যে, এগুলো পরীক্ষায় থাকবে না, কিংবা স্পোকেন ইংরেজির উপর পরীক্ষা হবে না, আমরা এগুলো কেন শিখব? তার সিলেবাসে লিখিত পরীক্ষার প্রাকটিস স্পোকেন ইংরেজির মাধ্যমেই করছে। ক্লাস হচ্ছে আনন্দময়, তারা অযথা সময় নষ্ট করবে না, দুষ্টুমি করবে না, বাইরে অযথা তাকাবে না আর ক্লাসও বোরিং মনে হবে না কারণ শিক্ষার্থী বিভিন্ন কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণ করছে।

প্রশ্ন হচেছ একজন শিক্ষক কিভাবে রপ্ত করবেন এসব ক্লসরুম ল্যাংগুয়েজ। এখানে ক্লাসরুম ল্যাংগুয়েজের কিছু উদাহরণ দেওয়া হলো। কোন নতুন পাঠ শুরু করার আগে বলবেন Dear students, open at page 30, have you opened it? You have opened? Fine, thank you. Now let us start our lesson. Well?

এভাবে চেক করবেন সাথে সাথে যাতে শিক্ষার্থীরা ল্যাংগুয়েজটি শিখতে পারে। নির্দিষ্ট পাঠ শেষ করে বই বন্ধ করতে বলবেন এভাবে Please close the book. I have closed the book, you? have you? শিক্ষার্থীদের দেখাবেন যে, আপনি বই বন্ধ করছেন। এভাবে আপনার সংস্পর্শে এসে আপনার ক্লাসে এসে আপনার উৎসাহে তারা স্পোকেন ইংরেজি অর্থাৎ ভাষা বাস্তবজীবনে ব্যবহার করার সুযোগ পাবে এবং শিখবে।

কোন পাঠ আর পড়াবেন না বা একটি নির্দিষ্ট স্থানে শেষ করতে চান তাহলে বলবেন Let us close the chapter here/should we go further? Can we stop it here? Yes or no? শিক্ষার্থীরা যখন উত্তর দিবে তাদের ধন্যবাদ দিন- a lot of thanks. বা Thank you.

স্পিকিং স্কিল ক্লাসে কেন প্রাকটিস করা হয় না? প্রথমত, স্পিকিংয়ের ওপর আভ্যন্তরীণ কিংবা জাতীয় পর্যায়ে কোন ধরনের পরীক্ষা গ্রহণ করা হয় না এবং কোন ধররেন নম্বর থাকে না। তাই শিক্ষক ও শিক্ষার্থী কেউই বিষয়টিতে কোন ধরনের আগ্রহ দেখায় না বা গুরুত্ব প্রদান করে না। দ্বিতীয়ত, স্পিকিং করার জন্য ভাষার ওপর যথেষ্ঠ দখল থাকতে হয়। মৌখিকভাবে ভাব-আদান প্রদানের জন্য ভাষায় যতটুকু দক্ষতা থাকা দরকার, ততটুকু দক্ষতা শিক্ষার্থীদের তো দূরের কথা শিক্ষকদেরই নেই। অতএব তারা স্পিকিং স্কীলে আগ্রহ প্রকাশ করে না। তৃতীয়ত, ক্লাসরুম ছাড়া তো ইংরেজিতে কথা বলার আর তেমন সুযোগ নেই এটি বাস্তব কারণেই।

কালচারাল বা সাংস্কৃতিক বাধা। আমাদের সংস্কৃতিতে বিশেষ করে গ্রামে এখনও ইংরেজিতে কিছু একটা বলতে শুরু করলে সহপাঠীসহ আশ-পাশের সবাই হাসাহাসি শুরু করে। ফলে, ইংরেজি বলতে অনেকেই স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে না। আরেকটি কারণ হচ্ছে শিক্ষার্থী ও শিক্ষক সবাই মনে করেন যে, ভুল ইংরেজি বললে সবাই সমালোচনা করবে, হাসাহাসি করবে তার চেয়ে না বলাই ভাল। এই না বলতে বলতে চর্চা একেবারই হচ্ছে না। আর ভাষা চর্চা না করলে তো আগাবে না। টুকটাক ইচ্ছে থাকা সত্ত্বেও অনেক শিক্ষক এবং শিক্ষার্থী ইংরেজি বলে না। এ অবস্থায় শিক্ষকে কী করতে হবে?

শিক্ষককে ক্লাসে ইংরেজি বলতে হবে। যেহেতু তার ইংরেজি বলার অভ্যাস নেই, তাই বাসায় তাকে পূর্ব থেকেই প্রাকটিস করতে হবে। শিক্ষক হয়ত মনে করতে পারেন যে, আমি যে বেতন পাই তাতে এত কষ্ট করার দরকার কী? আসলে এই পরিশ্রম বৃথা যাবে না একজন শিক্ষকের কারণ ইংরেজি বলায় পারদর্শিতা অর্জন করলে সেটি হবে আপনার নিজস্ব সম্পদ, এই সম্পদ কেউ আপনার কাছ থেকে নিতে পারবে না। আপনার সংস্পর্শে এসে শিক্ষার্থীরাও ইংরেজি শিখবে, আপনার ক্লাসে আসার আগ্রহ প্রকাশ করবে।

লেখক: প্রোগ্রাম ম্যানেজার, ব্র্যাক শিক্ষা কর্মসূচি, পেইস, প্রাক্তন ইংরেজি অধ্যাপক, ঘাটাইল ক্যান্টনমেন্ট কলেজ, সিলেট, কুমিল্লা ও মির্জাপুর ক্যাডেট কলেজ ও রাজউক উত্তরা মডেল কলেজ। ইমেইল: mmbillah2000@yahoo.com

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here